Home / রান্না বান্না / নান্না মিয়ার শাহী পোলাউ রেসিপি
শাহী পোলাউ

নান্না মিয়ার শাহী পোলাউ রেসিপি

বিখ্যাত নান্না মিয়ার রান্নার কথা সবাই শুনেছেন নিশ্চয়। অনেকেই হয়তো খেয়েছেনও বটে। তবে যারা খাননি তারা অবশ্যই খেয়ে দেখেন। নিশ্চয়ই ভাল লাগবে ও মুখে লেগে থাকবে। তাহলে আর দেরি না করে জেনে নিন সেই নামকরা নান্না মিয়ার শাহী মোরগ পোলাও। আর রান্না করে তাক লাগিয়ে দিন সবাইকে।

উপকরণ

মোরগের মাংস ৮ কেজি,

পোলাওর চাল ৫ কেজি,

পেঁয়াজ কুঁচি ২ কেজি,

আদা ৪০০ গ্রাম,

রসুন ২৫০ গ্রাম,

কাঁচা মরিচ ৫০০ গ্রাম,

তরল দুধ ১ কেজি,

টক দই ১ কেজি,

এলাচি ও দারুচিনি ৩০ গ্রাম করে,

কাঠবাদাম ৫০০ গ্রাম,

কিশমিশ ২৫০ গ্রাম,

লবণ ২৫০ গ্রাম,

তেল ৩ কেজি,

তেজপাতা কয়েকটা।

প্রণালি

রান্নার জন্য বড় পাত্র নির্বাচন করুন। মাংস ছোট ছোট টুকরা করে ধুয়ে নিন। চাল ভিজিয়ে রাখুন। রান্নার পাত্রে তেল ঢেলে গরম করে নিন। এবার মোট পেঁয়াজ কুচির তিন ভাগের এক ভাগ তেলে দিয়ে নাড়ুন। কিছুক্ষণ পর আদা ও রসুন বাটা দিয়ে নাড়ুন। মসলা নাড়তে নাড়তে অনেকটা বুন্দিয়ার মতো দানা হয়ে এলে বাকি পেঁয়াজ দিয়ে আবার নাড়ুন।

এবার মাংস ঢেলে দিন। সেই সঙ্গে টক দই, দুধ, এলাচি, দারুচিনি, মরিচ, কাঠবাদাম, তেজপাতা, লবণ দিয়ে দিয়ে দিন। এই সময়ে মাংসটা ভালো করে নাড়তে হবে। মাংস সেদ্ধ হয়ে এলে একটা সুন্দর ঘ্রাণ ছড়াবে। এবার মাংসের পাত্রে পর্যাপ্ত পানি দিতে হবে। প্রতি গ্লাস চালের জন্য চার গ্লাস পানি হিসেব করে নিলেই চলবে।

পানিটা ফুটে এলে ভিজিয়ে রাখার পর নরম হয়ে আসা চাল দিয়ে দিন। এবার কিছুক্ষণ নেড়ে নিয়ে চুলার আঁচ কমিয়ে দমে দিয়ে রাখুন। ১৫ মিনিট পর পাত্রের ঢাকনা খুলে পুরো চালটা উল্টেপাল্টে দিন। তারপর আবার দমে দিয়ে রাখুন। আধঘণ্টা পর চাল ফুটে গেলে নামিয়ে পরিবেশন করতে পারেন।

Check Also

গরুর কীমা

খুব সহজেই তৈরি করুন গরুর কীমা

যা যা লাগবেঃ ১। সয়াবিন তেল ২। মরিচ (২টা) ৩। টমেটো ৪। পিয়াজ (২ টা) ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *